অগাস্ট আটাশ, ২০১০

ব্লগের থিম চেঞ্জ করলাম। বুঝতেসিনা ভালো হইলো না খারাপ হইলো। তবে একটা কিছু নতুনত্ব যে আসলো এইটা নিয়েই আপাতত হ্যাপি।

গত দুইদিন ধরে এমন আলসেমি লাগতেসে সবকিছুতেই যে আমার নিজের কাছেই ব্যাপারটা উইয়ার্ড লাগতেসে খুব।

গ্রামীণের নেটের অবস্থা এখন ভয়াবহ। আমি একটু আগে রাইমিক্স এ ক্লিক করে ঝাড়া দশ মিনিট ওয়েটিং এ থাকলাম। শালার ওয়েটিং শেষ হয়ে পেজ লোজ হইলোনা।

আমাদের বুয়া নিয়মিত ভাবে রাতের বেলা ডাল রান্না করতে ভুলে যাইতেসে। বুঝতেসিনা কি করা যায়। আমি আবার এইটা নিয়ে তাকে কথা বলতে ভুলে যাইতেসি।

আজকে দুপুরে কথা নাই বার্তা নাই ধুমায়া বৃষ্টি পড়া শুরু করলো। গ্লাস লাগাতে না লাগাতেই দেখি মেঝে ভিজে একাকার। শুকাতে দেয়া কাপড়গুলাও ঠিকঠাক তুলতে পারলাম না। শেষে হাল ছেড়ে ভাবলাম ভিজুকগা। সূর্য তো আর ছুটিতে যাইতেসেনা।

পরে হঠাৎ মনে হলো ছাদ খোলা আছে কীনা। রায়হানরে বললাম লাবলু ভাইরে ফোন দিয়ে চাবি জোগাড় কর। সে কিছুক্ষণ গাইগুই করে ভালো বুদ্ধিটা দিলো। “আগে চেক করে দেখ ছাদ বন্ধ না খোলা।”
আমি উপরে গিয়ে দেখি দরজা খোলা। এক দৌড়ে রুমে এসে ইকবালের ন্যাকড়া বানানো শর্টস টা কোনমতে পড়ে নিয়েই দৌড় আবার। কিন্তু ভিজতে গিয়ে বিশাল টাশকি।এত ঠান্ডা বাতাসের তোড়ে ভিজার আনন্দ উপভোগের বদলে হিড় হিড় করে দাঁড়ায় দাঁড়ায় কাঁপতে লাগলাম আমরা দুইজন। শেষে টিকতে না পেরে দশ মিনিটের আগেই ব্যাক টু দ্য প্যাভিলিয়ন।

আজকে বসুন্ধরা ইফতার ছিলো পোলাপানের। এত বেশি আলসেমি লাগতেসিল যে গেলামই না। কাজটা খুব খ্রাপ হইসে। কিন্তু এটাও সত্যি যে আমি খুব অলস হয়ে গেছি।

রাতের বেলা তাওসীফ আর মুহাম্মদ আসলো। দুইজন অবশ্য জানতোনা যে অপরজন আজকেই আসতেসে। তাওসীফ বাসায় ঢুকে মুহাম্মদকে দেখে, আর মুহাম্মদ দেখে তাওসীফ কে। “আরে তুই?!”
আর সর্বশেষ খবর হচ্ছে মুহাম্মদ প্রায় একঘন্টা ব্যাপী কমোডের উপর মুখ সেট করে বসে ছিলো। বমি টমি করে একাকার অবস্থা। এমেচার হইলে যা হয় আর কি 😀

ইদানিং খুব সকাল সকাল ঘুম পেয়ে যাচ্ছে। এই যেমন আজকে। মাত্র একটা তেইশ বাজে, অথচ চোখ দুটো ভেজা তুলোর মত ভারী হয়ে লেগে যাচ্ছে পরস্পরের সাথে।

গুড নাইট।

Advertisements
This entry was posted in দিন লিপি. Bookmark the permalink.

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s